Sunday, জুলাই ১৪, ২০২৪

সাঁথিয়ায় বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ খেলায় হাত-পা ভেঙ্গে দেওয়ার হুমিক ও মারধর

সাঁথিয়া প্রতিনিধি : সাঁথিয়ায় বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ খেলার মাঠে খেলা চলাকালীন সময় প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে কোচকে কলার ধরে মারপিট ও আগামী ম্যাচে খেলতে আসলে সংশ্লিষ্টদের হাত-পা ভেঙ্গে দেওয়া হবে মর্মে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
সাঁথিয়া থানা অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব গোল্ড কাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্ণামেন্ট ২০২৪ এর অংশ হিসাবে সাঁথিয়া পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে ১০ জুলাই ২০২৪ রোজ বুধবার বিকেলে ইউনিয়ন পর্যায়ের চ্যাম্পিয়ন নন্দনপুর ইউনিয়ন বনাম ভুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন এর মধ্যে খেলা হয়। খেলা চলাকালীন অবস্থায় নন্দনপুর ইউনিয়ন এর প্রতিনিধিত্বকারী দল জোড়গাছা ইউনাইটেড সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোচ মোঃ জাহাঙ্গীর আলম কে শালঘর সরকারি প্রাথমিক বিদালয়ের প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলাম (রিপন) এর নেতৃত্বে ১০/১৫জন পোষ্য ক্যাডার অতর্কিত জোড়গাছা ইউনাইটেড সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোচের কলার ধরে কিল-ঘুষি মারতে থাকে। এসময় লোকজন এগিয়ে আসলে উচ্চস্বরে বলতে থাকে, আগামীকাল ম্যাচে খেলতে আসলে খেলার সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের হাত-পা ভেঙ্গে দেওয়া হবে। প্রতিকার চেয়ে জোড়গাছা ইউনাইটেড সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সাঁথিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ বরাবর একটি অভিযোগপত্র দিয়েছেন।
এ বিষয়ে জোড়গাছা ইউনাইটেড সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বলেন, পরবর্তী ম্যাচে খেলতে আসলে হাত-পা ভেঙ্গে দেওয়া হুমকিতে ছেলে-মেয়েরা ভয় ও আতংকবোধ করছে এবং আমরাও নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।
সাঁথিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন বলেন, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব জাহিদুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। আগামী ম্যাচ থেকে কোন অপৃতিকর ঘটনা যেন না ঘটে সেজন্য আমরা ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

একই রকম সংবাদ

বিজ্ঞাপনspot_img

সর্বশেষ খবর