এবিসি বার্তা

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

বর্তমান সরকারের অধীনে দেশে ইলিশের উৎপাদন বেড়েছে ৬৬ শতাংশ

 

 

জাতীয় সম্পদ ইলিশের গুরুত্ব দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানে দেশের জিডিপিতে এক শতাংশের বেশি অবদান রাখছে এই ইলিশ। ইলিশের উৎপাদন বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে সবাই এখন সাধ্যের মধ্যেই পাচ্ছেন সুস্বাদু এই মাছ। সরকারের নানামুখী কর্মকৌশলের ফলে ইলিশের উৎপাদন বাড়ছে। সংশ্লিষ্টরাও মনে করছেন জাটকা নিধন কার্যক্রম, মা ইলিশ সুরক্ষা ও ডিম ছাড়ার পরিবেশ সৃষ্টি করা, ইলিশের অভয়াশ্রম চিহ্নিতকরণ, জেলেদের বিকল্প কর্মসংস্থান সৃষ্টিসহ বহুমুখী পদক্ষেপের কারণে ইলিশের উৎপাদন বৃদ্ধি পাচ্ছে। যতই দিন যাচ্ছে সরকার ইলিশ উৎপাদন এবং উৎপাদন বৃদ্ধিতে পরিবেশ নিশ্চিত করতে সতর্কতার সঙ্গে কাজ করছে। আর তাতেই বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে গত ৯ বছরে ইলিশের উৎপাদন বেড়েছে ৬৬ শতাংশ।

বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী, বিশ্বের মোট ইলিশের ৭৫ শতাংশই উৎপাদিত হচ্ছে বাংলাদেশে। ১০ বছর আগেও দেশের মাত্র ২১ উপজেলার নদীতে ইলিশ পাওয়া যেত। বর্তমানে ইলিশ দেশের ১২৫ উপজেলার নদীতে ছড়িয়ে পড়েছে। মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, ২০০৮-০৯ অর্থবছরে ইলিশের উৎপাদন ছিল ২ দশমিক ৯৮ লাখ মেট্রিক টন, যা গত ৯ বছরে ৬৬ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে প্রায় ৫ লাখ মেট্রিক টনে উন্নীত হয়েছে। সরকারের কর্মকৌশল আর পরিকল্পনার কারণেই ইলিশের উৎপাদন বাড়ছে বলে জানান মৎস্য কর্মকর্তারা।

মৎস্য অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী, ২০০২-০৩ অর্থবছরে দেশে মেট্রিক টন ছাড়িয়ে গেছে। প্রতিকেজি ইলিশের দাম কমপক্ষে ৫০০ টাকা করে হিসেবে ধরলেও উৎপাদিত ইলিশের বাজারমূল্য ২৫ হাজার কোটি টাকার ওপরে। এই বাজারের বিষয়টি বিবেচনায় রেখে ‘কোন জাল ফেলবো না, জাটকা-ইলিশ ধরব না।’-এই স্লোগানে আগামী ১৬ থেকে ২২ মার্চ (৭ দিন) জাটকা সংরক্ষণ সপ্তাহ পালন করবে সরকার। ইলিশ অধ্যুষিত ৩৬ জেলায় এ সপ্তাহ পালিত হবে। যদিও এটি আগামী ১০ মার্চ থেকে পালন করার কথা ছিল। এবার ভোলা জেলার চরফ্যাশনে এই জাটকা সংরক্ষণ সপ্তাহের উদ্বোধন করা হবে। সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচীর মধ্যে সংশ্লিষ্ট ৩৬ জেলা-উপজেলায় সচেতনতামূলক ভিডিওচিত্র-প্রদর্শন, টিভি-রেডিও মোবাইলে প্রচার, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ ঢাকার বিভিন্ন স্থানে জাটকাসংরক্ষণ আইনের প্রচারের পাশাপাশি জালসহ জাটকা ক্রয়-বিক্রয়, বাজারজাতের বিরুদ্ধে ব্যাপক পুলিশি অভিযান ও ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হবে। সপ্তাহপালনের আওতাভুক্ত জাটকাসমৃদ্ধ ৩৬ জেলা হচ্ছে- ঢাকা, মানিকগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ, রাজবাড়ী, শরীয়তপুর, মাদারীপুর, ফরিদপুর, মুন্সীগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, নরসিংদী, টাঙ্গাইল, গোপালগঞ্জ, ভোলা, পটুয়াখালী, বরিশাল, পিরোজপুর, বরগুনা, ঝালকাঠি, চাঁদপুর, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, খুলনা, কুষ্টিয়া, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, সিরাজগঞ্জ, নাটোর, জামালপুর, পাবনা, কুড়িগ্রাম ও গাইবান্ধা

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email